আমি ও এক সময় সাংবাদিক ছিলাম : প্রধান বিচারপতি

0
167

নিজস্ব প্রতিবেদক :: নবনিযুক্ত প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, ‘আমিও একসময় সাংবাদিক ছিলাম’।আইন সাংবাদিকদের সংগঠন ‘ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের (এলআরএফ ) পক্ষ থেকে সোমবার দুপুরে নবনিযুক্ত এই প্রধান বিচারপতিকে তার খাসকামরায় শুভেচ্ছা জানাতে গেলে তিনি একথা বলেন।

শুভেচ্ছা বিনিময়কালে কয়েকজন নারী সাংবাদিকের উপস্থিতি দেখে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘সাংবাদিকতায় নারীরাও এগিয়ে আসছে, এটা ভালো দিক।’ ‘ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের নেতারা তথ্য পাওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যার কথা তুলে ধরলে প্রধান বিচারপতি বিষয়টি দেখবেন বলে সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করেন।শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম , ‘ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের (এলআরএফ ) সভাপতি আশুতোষ সরকার, সাবেক সভাপতি এম. বদি-উজ-জামান, সহসভাপতি মাশহুদুল হক, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম পান্নু, যুগ্ম সম্পাদক কবির হোসেন, কোষাধ্যক্ষ আহমেদ সরোয়ার হোসেন ভূঁঞা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলমগীর হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য হাবিবুর রহমান, আবদুল জাব্বার খান, মো. আফজাল হোসেন ও মেহেদী হাসান ডালিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।এর আগে গত শুক্রবার রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে নতুন প্রধান বিচারপতি নিয়োগ করেন। শনিবার তিনি শপথ গ্রহণ করেন। রোববার থেকে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতি, অ্যাটর্নি জেনারেল অফিস, বিভিন্ন আইনজীবী সংগঠনসহ ব্যক্তি পর্যায় থেকেও নবনিযুক্ত প্রধান বিচারপতিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে চলেছে।প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ১৯৮১ সালে জেলা আদালতে এবং ১৯৮৩ সালে হাইকোর্ট বিভাগের আইনজীবী হিসেবে নিবন্ধিত হন। ১৯৯৯ সালের ডিসেম্বরে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। ২০০১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত বিচারক নিযুক্ত হন।২০০৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টে স্থায়ী বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান। ২০১১ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি নিযুক্ত হন তিনি। আইনজীবী থাকাকালে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন দৈনিক সংবাদের আদালত প্রতিবেদক ছিলেন। বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ২০২১ সালের ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন।

Print Friendly, PDF & Email